বিপিয়া টিউটোর - এসো শিখি সহজ করে

বাংলা ভাষায় প্রযুক্তি সহজে উপস্থাপনের নিমিত্তে আমাদের এই ছোট্ট প্রয়াস।

🔍 কি খুঁজছেন!

গ্রাফিক্স এবং কম্পিউটার গ্রাফিক্স



গ্রাফিক্স শব্দের কোন প্রচলিত বাংলা বিশেষ্য পদ নেই । তাই একে বুঝার জন্য বলা যেতে পারে যে, "কোন ভাবার্থের বা অর্থশীল ঘটনার চিত্রকর্ম ।" গ্রাফিক্স শব্দটি একটি ইংরেজি শব্দ । যা এসেছে গ্রীক শব্দ "গ্রাফিকস" (Graphikos) শব্দ থেকে । যেটার গ্রীক অর্থ হল, "আঁকা-আঁকির সাথে সম্পর্কযুক্ত ।" যখন কেউ কোন বস্তুদ্বারা অন্য একটি বস্তুর উপর খুদায় করে অথবা তার উপর বিভিন্ন ভাবে দাগ টেনে কোন কিছু আঁকার চেষ্টা করে তখন সেটাকে গ্রাফিক্স বলা যেতে পারে ।

গ্রাফিক্স এবং কম্পিউটার গ্রাফিক্সঃ

গ্রাফিক্স এবং কম্পিউটার গ্রাফিক্স একই শ্রেণীর দুটি রূপ । গ্রাফিক্স হল, সকল ডিজিটাল (Digital) এবং নন-ডিজিটাল (Non-Digital) ভিজ্যুয়াল কনটেন্টের সমন্বয় এবং কম্পিউটার গ্রাফিক্স সেটাই যেটা শুধুমাত্র ডিজিটাল ভাবে  ভিজ্যুয়াল কনটেন্টকে কে সংরক্ষণ করে । মোট কথায়, কম্পিউটার গ্রাফিক্স , গ্রাফিক্সেরি একটি উপশাখা ।
উপরের ছবিটির ভিতরে বাম থেকে প্রথম ছবিটি খ্রীষ্টপূর্ব ২,৬০০,০০০ বছর পূর্বে প্রাচীন মানুষের (Prehistoric Art) সৃষ্ট কর্ম । যেটার ফসিল ফ্রান্সে পাওয়া গিয়েছে । এটার নাম চাউভ্যাট ক্যাভ (Chauvet Cave) । এবং ডান দিকের ছবিটি আধুনিক চিত্র-শিল্প ।

কম্পিউটার গ্রাফিক্সঃ


কম্পিউটারের ভাষায় গ্রাফিক্স মানে, অনেকগুলো পিক্সেল (Pixel) এর সমন্বয় । আর পিক্সেল হল কম্পিউটার পর্দার একক (Unit) ঘর । অর্থাৎ, অনেকগুলো পিক্সেল মিলে একটি পর্দা (Screen) ।

দৈনন্দিন জীবনে ব্যবসাহী এবং ব্যক্তিগত ভাবে কম্পিউটার গ্রাফিক্সের বিপুল ব্যবহার চলছে । কম্পিউটার গ্রাফিক্স কে সাধারণত দুই ভাগে ভাগ করা হয় । একটি হল রাস্টার বেইজ গ্রাফিক্স এবং অন্যটি হল, ভেক্টর বেইজ গ্রাফিক্স । রাস্টার গ্রাফিক্সে মূলত ব্যবহার করা হয় ওয়েব এবং কম্পিউটার ভিজ্যুয়াল প্রেজেন্টেশনের জন্য । অপর পক্ষে, ভেক্টর গ্রাফিক্স ব্যবহার করা হয় প্রিন্ট (Print) এর কাজের জন্য । ভেক্টর গ্রাফিক্সে কোন সময় আপনার ডকুমেন্টের কোয়ালিটি নষ্ট করে না । যে কোন সময় আপনার ইমেইজ ডকুমেন্টের সাইজ বাড়িয়ে কমিয়ে আপনি ব্যবহার করতে পারবেন । প্রেসে প্রিন্ট যখন করা হয় তখন প্রিন্টের সুবিধার্থে বিভিন্ন স্কেলে মূল ডকুমেন্টকে সাজিয়ে নিতে হয় । কোয়ালিটি নষ্ট হলে প্রিন্ট ফেঁকাসে হয়ে যায় । তাই ভেক্টর গ্রাফিক্সের মূল কাজই হল, প্রিন্ট মিডিয়ার জন্য । তবে, ভেক্টর গ্রাফিক্সে কাজ করলেও আপনি সেটাকে ওয়েবের জন্য প্রস্তুত করতে পারবেন ।
রাস্টার গ্রাফিক্সকে বিটম্যাপ ইমেইজও বলা হয় । বর্তমানে গ্রাফিক্সের যে হারে চাহিদা বৃদ্ধিপাচ্ছে তাতে নতুন কর্ম সংস্থান এবং উদ্ভাবনী ব্যক্তিগত প্রকল্প গুলো বিশেষ করে আমাদের মত উন্নয়ণশীল দেশগুলোতে বিশেষ ভাবে প্রভাব ফেলছে । একজন দক্ষ (Professional) গ্রাফিক্স ডিজাইনার প্রতিবছর গড়ে ৪১,০০০ $ (ডলার) পর্যন্ত রোজগার করতে পারে ।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন